1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:১৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
শ্রীবরদীতে ওয়ার্ল্ড ভিশনের শীতকালীন সবজি বীজ বিতরণ কেশবপুরে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত কেশবপুরে “নিরাপদ সড়ক চাই” প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত নকলায় গরুবাহী ট্রাক দুর্ঘটনায় ১৩টি গরুসহ একজন নিহত কেশবপুরের ডহুরী জলমহল হস্তান্তর করার পূর্বেই বিষ প্রয়োগ, ২৪ লাখ টাকার দেশীয় মাছের ক্ষতি শ্রীবরদীতে ইটভাটার পাহারাদার হত্যা মামলার তিন আসামী গ্রেফতার শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের নয়া কমিটির বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা। ধর্ষিতা কিশোরী অন্ত:সত্বা- ধর্ষণকারীর ফাঁসি চায় এলাকাবাসী কেশবপুরে মৎস্য ঘেরের ভেড়িতে গাঁজার চাষ, গ্রেফতার ১জন কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ চিকিৎসকের পদ শূণ্য

বিনামূল্যে ইন্টারনেট পাওয়া শিক্ষার্থীদের অধিকার

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০
  • ৩৫ Time View

ঢাকা: শিক্ষার্থীদের যেভাবে বই দেওয়া হচ্ছে, আমার তো মনে হয় তারা এখন বলবে আমাকে বই একটু পরে দিও, আগে ইন্টারনেট দাও। তাহলে তো বিনামূল্যে ইন্টারনেট পাওয়াটাও তার অধিকারের মধ্যে পড়ছে বলে মনে করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।

মোস্তফা জব্বার বলেন, আমি ব্যক্তি হিসেবে, মন্ত্রী হিসেবে বরাবরই চেষ্টা করে আসছি ইন্টারনেট যাতে সহজলভ্য হয়। ইন্টারনেট যাতে সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে। আমি যদি শিক্ষায় বিনামূল্যে ইন্টারনেটও দেই এবং ইন্টারনেটে যদি আমি সাবসিডিও দেই এটাকে ব্যয় হিসেবে গণ্য করা উচিত নয়। বিনিয়োগ হিসেবে গণ্য করা উচিত।

মন্ত্রী বলেন, এক্ষেত্রে আমরা মনে করি রাজস্ব সংগ্রহ করার জন্য করারোপ করা নিশ্চয়ই রাষ্ট্রের প্রচেষ্টা থাকবে। সেই কাজ করতেও হবে রাষ্ট্রকে। করারোপ করে রাজস্ব সংগ্রহও করতে হবে রাষ্ট্রকে। কিন্তু সব জায়গা থেকে তো আমি করারোপ করি না।

মোস্তফা জব্বার বলেন, যদি আমরা রাজস্বের বিষয়টা দেখতে চাই তাহলে বিনামূল্যে বই দেই কেন। বিনামূল্যে যদি বই দেই মানে হাজার হাজার কোটি টাকা দিয়ে শিক্ষার্থীদের শক্তিশালী করছি। বই যেভাবে দিচ্ছি, আমার তো মনে হয় ছাত্রছাত্রীরা এখন বলবে যে বই আমাকে একটু পরে দিও, কিন্তু আমাকে আগে একটু ইন্টারনেট দাও। তাহলে তো বিনামূল্যে ইন্টারনেট পাওয়াটাও তাদের অধিকারের মধ্যে পড়ছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের নীতিনির্ধারণী পর‌্যায়েও এ সিদ্ধান্ত হওয়া উচিত। আমরা কিভাবে বিনামূলে স্বল্পমূল্যে ইন্টারনেট দিতে পারি। আমরা কাজ করে যাচ্ছি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে বিনামূল্যে ওয়াইফাই দেওয়ার চেষ্টা করছি।

প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাহেল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ইন্টারটে সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট মো. আমিনুল হাকিম, সেক্রেটারি জেনারেল মো. ইমদাদুল হক ও প্রাইম ব্যাংকের হেড অব এমএসএমই সৈয়দ এম ওমর তায়েব।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, আইএসপিএবির সদস্যরা প্রাইম ব্যাংক থেকে জামানতবিহীন ৫০ লাখ টাকা পর‌্যন্ত ঋণ পাবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০২০

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।