1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:০০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কেশবপুর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম আবারো মেয়র পদে আওয়ামী লীগের চুড়ান্ত প্রার্থী পৌরসভা নির্বাচনে নালিতাবাড়ীতে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী বাছাই শ্রীবরদী পৌরসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটে আ’লীগের প্রার্থী বাছাই: বিজয়ী সফিক শেরপুর পৌর নির্বাচন : আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটে শেরপুরে আনিস বিজয়ী কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা প্রতিবাদে আ’লীগের এক মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংবাদ সম্মেলন তুরস্কে হ‌বে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য,বাংলা‌দে‌শে হ‌বে আতাতুর্কের ভাস্কর্য অঝোরে কাঁদলেন অপু বিশ্বাস! দ্বিতীয় ধাপে ৬১ পৌরসভার ভোট ১৬ জানুয়ারি শেরপুরে মায়ের বিরুদ্ধে শিশুকে হত্যার অভিযোগ কেশবপুরে ৫শত বছর বয়সী বনবিবি তেঁতুল গাছটি সংরক্ষণের দাবি

নালিতাবাড়ীতে বালু মহাল ইজারার দ্বন্দ্বে সংবাদ সম্মেলন

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২২ জুলাই, ২০২০
  • ২৩৫ Time View

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি
বালু মহালের রয়েলিটি আদায় সংক্রান্ত দুইপক্ষের দ্বন্দ্বের প্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে। বুধবার (২২ জুলাই) দুপুরে উপজেলার চারআলী বাজারে মেসার্স আল আমিন ট্রেডার্সের উদ্যোগে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
বালু ব্যবসায়ী নেতা রহুল আমীনের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে আল আমিন ট্রেডার্সের পক্ষে লিখিত বক্তব্য রাখেন বালু ব্যবসায়ী মোঃ জাকারিয়া। এসময় আল আমিন ট্রেডার্সের স্বত্তাধিকারী শহিদুল ইসলাম, ব্যবসায়ী নেতা হারুনুর রশিদ ও আমজাদ হোসেন বক্তব্য রাখেন।
সম্মেলনে জানানো হয়, দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা প্রাপ্তির পর ২০১৯ সালের ১৪ এপ্রিল ৯টি বালু মহাল তাদের বুঝিয়ে দেওয়ার কথা থাকলেও নানা জটিলতায় ৩টি মহাল ব্যতীত অন্যান্য মৌজা বুঝিয়ে দেয় সরকার। এর পাঁচ মাস পর উল্লেখিত তিনটি মৌজার পরিবর্তে কালাকুমা, নাকুগাঁও ও হাতিপাগার মৌজা তাদের অনুকূলে দেয় প্রশাসন। মেয়াদের শেষদিকে রাস্তার সংস্কার কাজ ও করোনায় লকডাউনের কারণে উত্তোলিত বালু পরিবহন ও বিক্রি করতে না পারায় তাদের প্রায় ত্রিশ লাখ ঘনফুট বালু মওজুদ রয়ে যায়।
পরবর্তীতে ইলিয়াস এন্টার প্রাইজ ভোগাই নদীর চারটি এলাকা বালু মহাল হিসেবে ইজারা নিয়ে পুরো ভোগাই নদী দখলে নেয়। ফলে আল আমিন ট্রেডার্সের মালিকানাধীন বালু পরিবহন ও বিক্রি করতে গেলে রয়েলিটি আদায় নিয়ে ঝামেলা তৈরি হয়। এমতাবস্থায় উত্তোলিত বালু আনতে সময় চেয়ে আল আমিন ট্রেডার্স হাইকোর্টের শরণাপন্ন হলে হাইকোর্ট ১৫ দিনের সময় দিয়ে জেলা প্রশাসককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। নির্দেশমতে গত ১৩ জুলাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইলিয়াস এন্টারপ্রাইজকে ১৫ দিনের জন্য কালুকুমা, নাকুগাঁও ও হাতিপাগার মৌজায় রয়েলিটি আদায় বন্ধ করে তদস্থলে আল আমিন ট্রেডার্সকে নিযুক্ত করেন।
এরপর আল আমিন ট্রেডার্সের রিটের আদেশ স্থগিত চেয়ে ইলিয়াস এন্টারপ্রাইজ গত ১৪ জুলাই হাইকোর্টের চেম্বার জজ আদালতে আবেদন করলে আল আমিন ট্রেডার্সের আদেশ স্থগিতের রায় দেন। এমতাবস্থায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুনরায় ২১ জুলাই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আল আমিন ট্রেডার্সের কাছ থেকে ইজারার দখল স্থগিত করেন। এ সুযোগে ইলিয়াস এন্টারপ্রাইজের লোকজন তাদের ইজারাকৃত ৪টি বালু মহালের বাইরে এসে নাকুগাঁও, হাতিপাগার ও কালাকুমা মৌজা থেকে রয়েলিটি আদায় শুরু করে।
ইলিয়াস এন্টারপ্রাইজের পক্ষে মনিরুজ্জামান সোহাগ জানান, আমাদের চারটি বালু মহালের মধ্যে তিনটিই নদীর ওপারে (পূর্বপাড়ে)। ফলে ওইসব বালু মহালের বালু চারআলী ব্রিজ দিয়ে পরিবহণ করতে হয়। এর ফলে আমরা ওই এলাকায় অফিস নিয়ে রয়েলিটি আদায় করে থাকি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুর রহমান জানান, বালু মহাল ইজারা আইনে সরকারী খাস কালেকশনের সুযোগ নেই। বালু মহল ইজারার বৈধ স্থানের প্রশ্নে তিনি বলেন, এ বিষয়টি জেলা প্রশাসকের এখতিয়ার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।