1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কেশবপুরের ডহুরী জলমহল হস্তান্তর করার পূর্বেই বিষ প্রয়োগ, ২৪ লাখ টাকার দেশীয় মাছের ক্ষতি শ্রীবরদীতে ইটভাটার পাহারাদার হত্যা মামলার তিন আসামী গ্রেফতার শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের নয়া কমিটির বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা। ধর্ষিতা কিশোরী অন্ত:সত্বা- ধর্ষণকারীর ফাঁসি চায় এলাকাবাসী কেশবপুরে মৎস্য ঘেরের ভেড়িতে গাঁজার চাষ, গ্রেফতার ১জন কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ চিকিৎসকের পদ শূণ্য শুধুমাত্র বৈবাহিক বন্ধন থেকে আমাদের সম্পর্কের ইতি টেনে নিলাম! অপরিকল্পিত ভাবে বালু উত্তোলনে ক্ষতবিক্ষত ভোগাই ও চেল্লাখালী নদী ঝিনাইগাতীতে প্রিমিয়ার ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত শ্রীবরদীতে নিখোজের চার দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার

শেরপুরে বন্যার্তদের পাশে হুইপ কন্যা ডাঃ অমি

শেরপুর প্রতিনিধি
  • Update Time : রবিবার, ২৬ জুলাই, ২০২০
  • ৫০ Time View

বন্যায় যাতায়াত অবস্থা এবং গর্ভবতী মা এবং শিশুদের নিয়ে যাতায়াত অনেকটা বিপদজনক।গর্ভবতী মা, শিশু ও বয়স্ক মানুষদের অনেক সমস্যা দিন দিন বেড়েই চলছে । তাই বন্যার্তদের পাশে শুরু থেকেই শেরপুরের বিভিন্ন ইউনিয়ন গুলিতে হুইপ কন্যা, শেরপুর সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ শারমিন রহমান অমি।
ডা.অমি নৌকা ভাড়া করে চরাঞ্চলের বানবাসী মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গর্ভবতী মা, শিশু ও বয়স্ক মানুষদের স্বাস্থ্য সেবা, ঔষধ প্রদান করে এবং তার বেতনের টাকা দিয়ে চিড়া,মুড়ি ও গুড় বিতরণ করে আবারও এক নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন।অন্যান্য বারের চেয়ে এবারের বন্যা দীর্ঘমেয়াদী এবং করোনা ভাইরাসে শেরপুর তথা সারা দেশেই একই অবস্থা বিরাজ করছে । সরকারী ত্রান , রেশন , ভিজিএফ এবং ঔষধ পত্র দিলেও তা চাহিদার তুলনায় অনেক কম ।

অন্যান্য সময় দেখা গেছে বিভিন্ন এনজিও , বেসরকারী প্রতিষ্ঠান , বিভিন্ন সংগঠন বন্যার্তদের সাহায্য জন্য এগিয়ে আসলেও বর্তমানে অনেকাটায় এখন ভাটা পড়েছে । দীর্ঘমেয়াদী বন্যায় সাধারণ মানুষ এবং কৃষকদের অনেক সমস্যা বাড়ছে ।

ডাঃ শারমিন রহমান অমির কর্মকান্ড মনে করিয়ে দেয় তার বাবা মহান জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আতিউর রহমান আতিক এম.পির কথা।যিনি সেই শেরপুরের ৮৮ সালের ভয়াল বন্যায় নিজের জীবন বাজি রেখে বন্যয় কবলিত চরাঞ্চলের মানুষের জানমাল রক্ষা করার জন্য নৌকা ভাড়া করে বন্যার্ত মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়েছিলেন । গবাদি পশুর খাবার হিসাবে খড়কুটো জোগাড় করে দিয়ে ছিলেন। রাস্তার পাশে দাড়িয়ে সাহায্য উত্তোলণ করে মানুষের জন্য খুলেছিলেন ভীমগঞ্জ বাজারে লংগর খানা। এখনও মানুষ সেটা ভুলতে পারিনি ।তিনি তখন এম.পি ছিলেন না, ছিলেন না প্রচুর সম্পদের মালিক। ছিলেন একজন সাধারণ মানুষ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।