1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:২৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কেশবপুর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম আবারো মেয়র পদে আওয়ামী লীগের চুড়ান্ত প্রার্থী পৌরসভা নির্বাচনে নালিতাবাড়ীতে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী বাছাই শ্রীবরদী পৌরসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটে আ’লীগের প্রার্থী বাছাই: বিজয়ী সফিক শেরপুর পৌর নির্বাচন : আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটে শেরপুরে আনিস বিজয়ী কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা প্রতিবাদে আ’লীগের এক মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংবাদ সম্মেলন তুরস্কে হ‌বে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য,বাংলা‌দে‌শে হ‌বে আতাতুর্কের ভাস্কর্য অঝোরে কাঁদলেন অপু বিশ্বাস! দ্বিতীয় ধাপে ৬১ পৌরসভার ভোট ১৬ জানুয়ারি শেরপুরে মায়ের বিরুদ্ধে শিশুকে হত্যার অভিযোগ কেশবপুরে ৫শত বছর বয়সী বনবিবি তেঁতুল গাছটি সংরক্ষণের দাবি

শেরপুরে বন্যায় কৃষিতে ক্ষতি সাড়ে ২৭ কোটি!

মাসুদ হাসান বাদল
  • Update Time : সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০
  • ৮৫ Time View

সাম্প্রতিক বন্যায় শেরপুর জেলায় কৃষিতে ২৫ কোটি ৩০ লাখ টাকার উৎপাদিত ফসল  ও মৎস চাষীদের ১ কোটি ৯১ লাখ টাকা মূল্যের মাছ ও  অবকাঠামোর ক্ষতি হয়েছে। এই ক্ষয় ক্ষতির পরিমান লিখিত ভাবে সরকাকে জানানো হয়েছে বলে জেলার কৃষি বিভাগ ও মৎস বিভাগ জানিয়েছে। দুই বিভাগের নির্ধারিত ক্ষতির পরিমানের চেয়ে বাস্তব ক্ষতির পরিমান আরও অনেক বেশী বলে জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছে।

জনপ্রতিনিধিদের দাবি সরকার দ্রুত এসব ক্ষতিগ্রস্থ চাষিদের পাশে দাঁড়াক।

শেরপুর কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, জেলার কৃষি উৎপাদনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সরকারি হিসাবে মোট ২৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা মূল্যের রুপা আমন বীজ তলা, রুপা আমন ক্ষেত.আউস, সবজি ও পাটে ক্ষতি হয়েছে। তবে সবচেয়ে বেশী ক্ষতি হয়েছে বৃহত্তর চরাঞ্চলের কৃষকদের।ব্রহ্মপুত্রের অববাহিকার চরাঞ্চল জুড়ে প্রায় দেড় সপ্তাহ সবজি ক্ষেতগুলো পানির নীচে থাকায় সবজি পঁচে গেছে।

জানা গেছে, ১ হাজার ২৬০ হেক্টর জমির সবজি নষ্ট হয়েছে। রুপা আমনের বীজ তলা ডুবে নষ্ট হয়েছে ৮শ ৪২ হেক্টর জমির। অপরদিকে জেলার মৎস বিভাগ সূত্র জানিয়েছে ভারি বর্ষণ ও বন্যায় জেলার মৎস প্রকল্প ও ছোটবড় মোটামোটি সব পুকুর ডুবে একাকার হয়ে যায়। সরকারি হিসাবেই বড় মাছ অসংখ্য মাছ বের হয়ে গেছে ও অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে ১ কোটি ৯১ লক্ষ টাকা। এই ক্ষতি বেশী হয়েছে  সদর ও নকলা উপজেলাতে।

জেলা মৎস কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ও পূর্ণবাসনের জন্য সরকারকে জানানো হয়েছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা ফকির মোঃ মোবারক আলী জানিয়েছেন, বন্যায় চরাঞ্চলের সবজি কৃষকরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুক্ষিন হয়েছেন। ক্ষয় ক্ষতির পরিমান সরকারকে জানানো হয়েছে। জেলার কৃষি বিভাগ বীজতলা তৈরি করছে ও কৃষকদের মধ্যে সবজির বীজ বিতরন করা হবে। আর কি ধরনের সহযোগীতা করা যায়- সরকার বিবেচনা করছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।