1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ঝিনাইগাতীতে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জেরে ইউপি সদস্যের হাতে চেয়ারম্যান প্রহৃত ঝিনাইগাতীতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুমানের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল কেশবপুরে ১৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬ জন করোনা পজিটিভ নালিতাবাড়ীতে মাদকসেবী,মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোরগ্যাং সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন। সাংবাদিক এমএ হাকাম হীরার মায়ের ইন্তেকাল “বছরে এক লক্ষ ব্যাগ রক্তের যোগান দেবে জাগ্রত ব্লাড ডোনার’স ক্লাব” ”কত মাইনষ্যে ঘর পাইলো, আমি কিছুই পাইলাম না” কেশবপুরে রোগযন্ত্রনা সইতে না পেরে বৃদ্ধার আত্মহত্যা কেশবপুরে পুকুর থেকে কাঠ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার সোহাগপুর বিধবা পাড়ায় শহিদ স্মৃতি সৌধের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

প্রার্থী হতে নাছোড়বান্দা!

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৬৫ Time View

শেরপুর প্রতিনিধি
তিনি শেরপুর জেলা ট্রাক,মিনি ট্রাক,ঠ্যাংক লড়ী ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ১১ বছরের বর্তমান সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আধুনা শিল্পপতি আরিফ রেজা। অনেক আগে থেকেই শেরপুর পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন করবেন,বলে আসছেন। ডিসেম্বর নাগাদ নির্বাচন হবে এমন খবরে এই শ্রমিক নেতা সারা শহরময় রঙিন পোষ্টারে ছেয়ে ফেলেছেন। শহরের সর্বত্র এই নেতার পোষ্টারে সয়লাব। দল থেকে মনোনয়ন চাইবেন, না দিলেও নির্বাচন করবেন এমন ঘোষনা প্রকাশ্যেই করে যাচ্ছেন। তিনি এখন প্রার্থী হতে নাছোর বান্দা হয়ে মাঠে নেমেছেন।
জানা গেছে,আরিফ রেজা দীর্ঘদিন ধরে জেলার ২০টি শ্রমিক সংগঠন মিলিয়ে বেসিক ট্রেড ইউনিয়নের শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। নানান সামাজিক সংগঠন ও ওয়ার্ড আওয়ামলীলীগরে দায়িত্বেও আছেন। আরিফ রেজার বাবা মৃত সেলিম রেজাও ছিলেন এই জেলার একজন সর্ব পরিচিত শ্রমিক নেতা। বোন ফাতেমাতোজ্জহোরা শ্যামলি গত সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ ও বর্তমানে এই জেলা বিশিষ্ঠ শিল্পপতি ও মহিলা উদ্যোক্তা। শ্যামলি শেরপুর জেলা যুব মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন। আরিফ রেজা সাক্ষাৎকারে বলেছেন দলের মনোনয়ন পেতে আপ্রান চেষ্ঠা আছে,আর না পেলে নির্বাচন করবোই। মানুষের সাথে কথা দিয়েছি, মনোনয়ন পাই না পাই প্রার্থী হবো এবং শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবো। গত পাঁচ বছর মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়েছি, মানুষের পাঁশে দাঁড়িয়েছি। করোনা কালে পৌর এলাকার ২২ হাজার মানুষকে ত্রাণ সহয়তা দিয়েছি। দীর্ঘ কাল আমার বাবাও মানুষের সাথে ছিলেন। আমার বোন শ্যামলিও মানুষের সাথে আছেন। দল মূল্যায়ন না করলেও পৌরবাসি আমার সাথে আছে। তার দাবী ১৫০ বছরের পুরনো ১ম শ্রেণীর পৌরসভা শেরপুর। জলাবদ্ধতা, রাস্তাঘাট, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসহ এখানে নাগরিকদের কোন সমস্যার সমাধান হয়নি। সুবিধা না বাড়লেও ইচ্ছমত কর বাড়নো হয়েছে। ক’বছরে ১০০ টাকার ট্যাক্স হয়েছে ২হাজার টাকা। শ্রমিক ও গরীব মানুষরা বঞ্চিত। এসব সহ্য হয় না তাই প্রার্থী হবোই। এসময় তিনি মৃত বাবা সেলিম রেজার কছম খেয়ে বলেন নির্বাচন থেকে সরবেন না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।