1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কেশবপুরের ডহুরী জলমহল হস্তান্তর করার পূর্বেই বিষ প্রয়োগ, ২৪ লাখ টাকার দেশীয় মাছের ক্ষতি শ্রীবরদীতে ইটভাটার পাহারাদার হত্যা মামলার তিন আসামী গ্রেফতার শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের নয়া কমিটির বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা। ধর্ষিতা কিশোরী অন্ত:সত্বা- ধর্ষণকারীর ফাঁসি চায় এলাকাবাসী কেশবপুরে মৎস্য ঘেরের ভেড়িতে গাঁজার চাষ, গ্রেফতার ১জন কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ চিকিৎসকের পদ শূণ্য শুধুমাত্র বৈবাহিক বন্ধন থেকে আমাদের সম্পর্কের ইতি টেনে নিলাম! অপরিকল্পিত ভাবে বালু উত্তোলনে ক্ষতবিক্ষত ভোগাই ও চেল্লাখালী নদী ঝিনাইগাতীতে প্রিমিয়ার ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত শ্রীবরদীতে নিখোজের চার দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার

নালিতাবাড়ীতে শিশু গৃহকর্মী ধর্ষণের অভিযোগ ধর্ষক সহ পাঁচজন কারাগারে

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫১৬ Time View

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি
ধর্ষনের অভিযোগে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় হারুন অর রশিদ(৩৫) নামে গতকাল বুধবার রাতে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পৃথকস্থান থেকে আরো চার জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত ৫ জনকে আজ বৃহস্পবিার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে শিশুর পিতা বাদি হয়ে ৮ জনের বিরোদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে।
জেলা সদর হাসপাতালে মেডিক্যাল পরীক্ষার পর ভিকটিমকে সেফ হোমে পাঠানো হয়েছে।
আটককৃতরা হলেন,উপজেলার ঘাইলারা গ্রামের তাইজুল ইসলাম,শালমারা গ্রামের সিরাজুল ইসলাম,পিঠাপুনি গ্রামের হাসমত আলী এবং হালুয়াঘাটের জাহিুল ইসলাম।
এলাকাবাসী, ভিকটিম ও পুলিশের তথ্যমতে, উপজেলার গাছগড়া গ্রামের দিনমজুর হযরত আলী কন্যা শিশুটিকে (১০) এক আত্মীয়ের মাধ্যমে উপজেলার ঘাইলারা গ্রামের সৈয়দ আলী মন্ডলের ছেলে হারুন অর রশিদ (৩৫) বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে পাঠায়। প্রায় চার মাস কাজে থাকাবস্থায় একরাতে গৃহকর্তা হারুন পাশের কক্ষে ঢুকে শিশু গৃহকর্মীটিকে নানা প্রলোভন ও ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়। একপর্যায়ে বিষয়টি প্রকাশ হলে স্থানীয় দালালদের মধ্যস্থতায় (প্রায় আড়াই লাখ) টাকায় আপোষ- করে গৃহকর্মীকে তাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এরই ঘটনার প্রায় একমাস পর টাকার ভাগবাটোয়ারার দ্ব›েদ্ব ধামাচাপা দেওয়া ঘটনাটি লোকমুখে প্রচার হয়ে পড়লে মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় উঠে। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে এলে থানা পুলিশ ভিকটিম উদ্ধার ও অভিযুক্তকে আটকের চেষ্টা চালায়। গতকাল বুধবার সকালে শিশুটিকে পার্শ্ববর্তী হালুয়াঘাট উপজেলার রণকুঠুরা গ্রামে তার ফুফাতো ভাই জাহিদুল ইসলামের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে এবং আশ্রয়দাতা জাহিদুল ও ধর্ষক হারুনের বড় ভাই সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলামকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। অভিযুক্ত প্রধান আসামী হারুনকে তিনানী এলাকা বুধবার রাতে গ্রেফতার করা হয়েছে।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমদ বাদল বলেন,হারুনের ব্যপাওে সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষা ও ২২ ধারায় জবানবন্দি শেষে সেফ হোমে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।