1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১২:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
শ্রীবরদীতে ইটভাটার পাহারাদার হত্যা মামলার তিন আসামী গ্রেফতার শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের নয়া কমিটির বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা। ধর্ষিতা কিশোরী অন্ত:সত্বা- ধর্ষণকারীর ফাঁসি চায় এলাকাবাসী কেশবপুরে মৎস্য ঘেরের ভেড়িতে গাঁজার চাষ, গ্রেফতার ১জন কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ চিকিৎসকের পদ শূণ্য শুধুমাত্র বৈবাহিক বন্ধন থেকে আমাদের সম্পর্কের ইতি টেনে নিলাম! অপরিকল্পিত ভাবে বালু উত্তোলনে ক্ষতবিক্ষত ভোগাই ও চেল্লাখালী নদী ঝিনাইগাতীতে প্রিমিয়ার ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত শ্রীবরদীতে নিখোজের চার দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার ডাঃ আব্দুল হামিদ ফাউন্ডেশন থেকে মাস্ক, শীত বস্ত্র ও হুইল চেয়ার বিতরণ

ঝিনাইগাতী একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

খোরশেদ আলম
  • Update Time : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৭ Time View

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ফাকরাবাদ একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবুর দুর্নীতি ও জাল-জালিয়াতির ক্ষমতার অপব্যবহারের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। ২২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা চত্বরের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সালেহ আহমেদ, স্থানীয় মোফাজ্জল হোসেন, আব্দুল লতিফ, এমদাদুল হক, মোহাম্মদ আলী, সালেহ আহমেদ, ছাত্র সমাজের পক্ষে বক্তব্য রাখেন শরীফ আহমেদ প্রমূখ। বক্তারা বলেন ফাকরাবাদ একতা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবু ২০০৮ সালে চাকরি ছেড়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেন। নির্বাচনে হেরে  ক্ষমতার দাপটে জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে অবৈধ ভাবে আবারো প্রধান শিক্ষকের পদ দখল করে নেন। এরপর থেকে তিনি প্রধান শিক্ষক হিসেবে বেতন-ভাতা থেকে শুরু করে সরকারি সকল প্রকার সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে আসছেন। বক্তারা বলেন শুধু তাই নয় প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবু ভুয়া সনদসহ জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে অবৈধভাবে ৯ জন শিক্ষক নিয়োগ দেন। তাদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন মোটা অংকের অর্থ। এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে  উপজেলা সদরের বাসিন্দা মনোয়ার উল্লাহ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদকে) লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। দুদক পরিচালক এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য জেলা শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশ দেন। ১৭ অক্টোবর জেলা শিক্ষা অফিসার মোকছেদুর রহমান একতা উচ্চ বিদ্যালয়ে তদন্তে আসেন। তদন্তের সময় প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবুর জাল-জালিয়াতির ঘটনার সত্যতার প্রমাণ পান। এছাড়া নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে সঠিক কাগজপত্রও দাখিল করতে পারেননি তিনি। এ প্রসঙ্গে প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবু বলেন কাগজপত্র খোয়া গেছে। প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবুর এসব দুর্নীতি ও জাল-জালিয়াতির বিরুদ্ধে এলাকাবাসী এ মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধন শেষে প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবুর দুর্নীতি ও জাল-জালিয়াতির বিচার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদের কাছে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।