1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
শেষ হলো কবি জসীম উদ্দীন সাহিত্য উৎসব। ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবলীগ নেতা মিলনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কেশবপুরে রাস্তার মাঝে গাছ ও সীমানা প্রাচীর থাকায় চলাচলের ঝুঁকিতে শতাধিক পরিবার কেশবপুরে সাবেক এমএনএ সুবোধ মিত্রের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত নালিতাবাড়ীতে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থীর নির্বাচনী সভা পন্ড হওয়ার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলণ ঝিনাইগাতীতে উপজেলা পরিষদের নতুন কার্যালয় উদ্বোধন নালিতাবাড়ীতে আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থীর ইশতেহার ঝিনাইগাতীতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক ভুমিকা বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত শেরপুরে ৬ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা,২ প্রার্থীর বাতিল ৫ বছরেও শেষ হয়নি সড়কের নির্মাণ কাজ,ভোগান্তিতে এলাকাবাসী।

ঝিনাইগাতীতে বিএডিসি’র পাইপ ড্রেনের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় কৃষকরা

শেরপুর প্রতিনিধি
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৪৭ Time View

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নে প্রান্তিক কৃষকের দুই শতাধিক একর জমি আবাদের আওতায় আনতে বিএডিসি’র উদ্যোগে প্রায় ২ কিলোমিটার পাইপ ড্রেনের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় ভুক্তভোগী কৃষকরা।
কৃষকদের সাথে কথা বলে জানাগেছে, জেলার ঝিনাইগাতি উপজেলার মহারশি নদী থেকে বিএডিসি’র স্থাপিত পাইপ লাইন ড্রেনটি নলকুড়া ইউনিয়নের বাঐবাধা শেষ প্রান্ত পর্যন্ত আসায় সেখানকার দীর্ঘদিনের অনাবাদি জমিগুলো আবাদের আওতায় আসে। ওই ড্রেনটি সম্প্রসারণ করে ভারুয়া, বাঐবাধা ও জারুলতলা গ্রামে আনা হলে প্রায় ২ শতাধিক একর জমি সেচ ব্যবস্থাপনায় আসবে। বর্তমানে ওই এলাকার জমিগুলো অনাবাদি অবস্থায় পড়ে আছে।
নলকুড়া ইউনিয়নের ফাকরাবাদ মানিককুড়া গ্রামের বিএডিসি’র সেচ প্রকল্পের ব্যবস্থাপক মো. খালেদ সাইফুল্লাহ, কৃষক সিদ্দিকুর রহমান, সেলিম মিয়া, শফিকুল ইসলাম, নুরুল ইসলামসহ অসংখ্য কৃষক জানিয়েছে, বিএডিসি’র এই দুই কিলো মিটার পাইপ লাইন ড্রেনের ব্যবস্থা করতে পারলে ৩ গ্রামের অন্তত ২০০ একর অনাবাদি জমি আবাদের আওতায় আসবে। এতে প্রান্তিক পর্যায়ের ৫ শতাধিক কৃষক উপকারভোগি হবে।
এ ব্যাপারে নলকুড়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. মজনু মিয়া কৃষকের এই দাবীকে যৌক্তিক বলে দাবী করেছেন।
ঝিনাইগাতী উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ বলেছেন, গুরুত্ব বিবেচনায় বিষয়টি তিনি দেখবেন।
শেরপুর জেলার বিএডিসি’র (ক্ষুদ্্র সেচ) প্রকল্পের সহকারী প্রকৌশলী মো. আলাল উদ্দিন জানান, ওই এলাকাতে বহু অনাবাদি জমি আছে। এই অনাবাদি জমিগুলোকে সেচের আওতায় আনতে প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।