1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০২:১৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত কেশবপুরে মাদ্রাসা প্রধানের বিরুদ্ধে ট্রাষ্ট সম্পত্তি ও প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় অনিয়মের অভিযোগ কেশবপুরে এবার একদিনেই সম্পন্ন করা হবে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের জন্মবার্ষিকী ‘মধুমেলা’ শেরপুরে মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীর সমর্থকদের বিক্ষোভ, আটক ২ কেশবপুরে ওজনে কম দেওয়ায় ভোক্তা অধিকার আইনে ভ্রাম্যমান আদালতে ২ মিষ্টান্ন ব্যবসায়ীকে জরিমানা কেশবপুরে গভীর রাতে ঘুমন্ত মা ও ছেলের উপর সন্ত্রাসী হামলা, বসতবাড়ী ভাংচুর, থানায় অভিযোগ নালিতাবাড়ীতে ইমরান সালেহ প্রিন্স-জনগণ যদি ভোট দিতে পারে,তাহলে বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন। ঝিনাইগাতীতে দুই ট্রাকের মুখো-মুখি সংঘর্ষে আহত ২ ঝিনাইগাতীতে ৫০ বছর পর বধ্যভুমি সংরক্ষণের উদ্যোগ নিলেন – জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব নালিতাবাড়ীতে বাবলু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কাউন্সিলর নির্বাচিত

ভূয়া কাজীকে ইএনও-র অভিনব শাস্তি!

শেরপুর প্রতিনিধি
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৬১ Time View

শেরপুরের ঝিনাইগাতীর ৬ নং হাতীবান্ধা ইউনিয়নসহ ঝিনাইগাতী বিভিন্ন স্থানে বেআইনি যত বিয়ে নিবন্ধন করেন কাজী বাছেদ মিয়া। তিনি প্রায় দুই মাস আগে হাতীবান্ধা ইউনিয়নে পাগলার মুক গ্রামে বাল্য বিয়ে পড়াচ্ছেন, এমন খবর আসে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদের কাছে। এই সংবাদে নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনা স্থলে পৌছানোর আগেই ভূয়া কাজী বাছেদ মিয়া পালিয়ে যায়। ঘটনার পরের দিন ওই কর্মকর্তা এলাকা জুড়ে মাইকিং করেন ,কাজী বাছেদ মিয়া আপনি যেখানেই থাকেন না কেন আপনাকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে স্বশরীরে ভলিউমসহ যোগাযোগ করার জন্যে অনুরোধ করা হলো। অন্যথায় আপনার বিরুদ্ধে বাল্য বিবাহ নিবন্ধন করার অপরাধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এরপর নির্বাহী কর্মকর্তা বিভিন্ন মাধ্যমে নিশ্চিত হন ওই কাজী আসলে ভূয়া। বিষয়টি টের পেয়ে ভূয়া কাজী বাছেদ মিয়া দুই মাস পালিয়ে থাকেন। দুই মাস পর বাছেদ মিয়া গত সপ্তাহে হাজীর হন নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে। কাজী অনুরোধ করেন তিনি যে কোন শাস্তি মেনে নিতে রাজী আছেন তবুও তার(কাজী) বিরুদ্ধে যেন আইনগত ব্যবস্থা না নেওয়া হয়। নির্বাহী কর্মকর্তা শর্ত দেন আপনি(বাছেদ) ভূয়াকাজী এই কথা স্বীকার করে ৭দিন নিজে উপজেলায় মাইকিং করবেন। আর ১০০ টাকার ১০০ টি স্ট্র্যম্পে ই্উনিয়ন পরিষদে অঙ্গীকার করতে হবে। শর্ত মোতাবেক আজ বৃহস্পতিবার ছিল মাইকিং করার শেষ দিন। এই ৭দিন ধরেই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বাছেদ মিয়াকে মাইকিং করতে দেখা গেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্তৃক কাজীকে অভিনব এই শাস্তি ও কাজীর এই কান্ডে এই নিয়ে এলাকার মানুষের মধ্যে বেশ আগ্রহ সৃষ্ঠি হয়েছে। বাছেদ মিয়া নিজ খরচে ইজিবাইকে করে তিনি মাইকিং করে নিজে বলছেন, আমি যা করেছি অন্যায় করেছি, আমি আরো অঙ্গীকার করছি যে ভবিষ্যতে আমি কোন প্রকার বাল্যবিবাহ পড়াবো না, অনৈতিক কোন কাজ করবো না । যে খানেই বাছেদ মিয়া মাইকিং করছে সেখানেই মানুষ মজা করে শুনছে। বিষয়টি এলাকার মানুষের মধ্যে বেশ আনন্দের খোরাক জুগিয়েছে। নির্বাহী কর্মকর্তার এমন কাজকে মানুষজন সাধুবাদ জানিয়েছেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ বলেন,এই কাজীর সরকারি কোন নিবন্ধন নেই,কাজী পরিচয়ে এলাকায় অন্যায় ভাবে বিবাহ সম্পাদন করে আসছিল দীর্ঘদিন ধরেই। অভিনব এই শাস্তিতে ভূয়া কাজীদের উপদ্রব কমবে। বিয়ের মত একটি স্পর্শকাতর কাজ ভূয়া কাজী নিবন্ধন করবেন তা মেনে নেওয়া যায় না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।