1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ঝিনাইগাতীতে সুকুমার হলেন শুকুর আলী কেশবপুরে বজ্রপাত প্রতিরোধে তালের চারা রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করলেন এমপি শাহীন চাকলাদার নালিতাবাড়ীতে সনাকের উদ্যোগে ৪০০ তালবীজ রোপন ঝিনাইগাতীতে ইউনিয়ন পরিষদের রাস্তা বন্ধ করে বিল্ডং নির্মানের অভিযোগের তদন্ত শুরু কেশবপুরে যুব সমাজের উদ্যোগে বজ্রপাত প্রতিরোধে তালের বীজ রোপন শেরপুরে মুজিব শতবর্ষ জেলা দাবা লীগ উদ্বোধন : প্রথমদিন দাবা ক্লাবের পূর্ণ পয়েন্ট লাভ। নালিতাবাড়ীতে মায়ের সাথে অভিমান করে শিশুর আত্মহত্যা শ্রীবরদীতে মাদকবিরোধী অভিযানে হেরোইনসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার সোমেশ্বরী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু লুটপাট চলছেই,পাড় ভেঙ্গে হুম‌কি‌তে বসতবাড়ি নালিতাবাড়ীতে আখ চাষে লাভ,বাড়ছে আবাদ

কেশবপুরে বেড়েছে কিশোর গ্যাংয়ের দৌরাত্ম্য

মীর আজিজ হাসান (যশোর)কেশবপুর প্রতিনিধি।
  • Update Time : সোমবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১২৭ Time View

কেশবপুরে হঠাৎ কিশোর গ্যাং কালচার বেড়ে গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে অভিভাবকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে হঠাৎ তাদের তৎপরতা বেড়েছে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেলের ধাক্কায় এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনায় এক কিশোর গ্যাং সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মামলা হওয়ায় আরও দুই সদস্যকে খোঁজা হচ্ছে বলে পুলিশ জানায়। অনেক দিন ধরে তারা এ ধরনের তৎপরতা চালাচ্ছিল বলে পুলিশের কাছে তথ্য দিয়েছে আটক কিশোর।

জানা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বিপথগামী কিশোররা গ্যাং কালচারের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়েছে। পৌর শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে গ্যাং কালচারের ঢেউ। পৌর এলাকা ছাড়াও উপজেলার পাঁজিয়া, মঙ্গলকোট, সাতবাড়িয়া, ত্রিমোহিনী, সাগরদাঁড়ি, গৌরীঘোনা, ভান্ডারখোলা, আটন্ডাসহ বিভিন্ন এলাকায় এদের তৎপরতা বেড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। টাকার বিনিময়ে জমি দখল, ঘের দখল, পাওনা টাকা আদায়, যৌন হয়রানি, মাদক ব্যবসা ও মাদক গ্রহণ, চাঁদাবাজি, আধিপত্য বিস্তার, প্রতিপক্ষকে দেখে নেওয়ার হুমকি প্রভৃতি অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে উপজেলার ওইসব এলাকার কিশোর এবং তরুণরা। এর সঙ্গে যুক্তদের বয়স ১৩ থেকে ২০-২১ বছর।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বলছেন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের গতিবিধি ও কর্মকাণ্ডের ওপর নজরদারি চলছে। উঠতি বয়সীদের দ্রুত টানছে এই কিশোর গ্যাং কালচার। পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে হঠাৎ তাদের তৎপরতা বেড়েছে বলে লক্ষ্য করা গেছে।

উপজেলা নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক এড. আবু বকর সিদ্দিকী বলেন, কিশোর অপরাধ ও কিশোর গ্যাংয়ের যে নতুন একটি চর্চা কেশবপুরে শুরু হয়েছে, এটার পেছনে কেউ কেউ বড় ভাই হিসেবে যুক্ত থাকছে। বড় ভাইরা যদি এখনই না থামে, তবে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি হবে। পরিবারগুলোকে তাদের সন্তানদের সঠিক পথে রাখার জন্য সতর্ক থাকতে হবে।

কেশবপুর থানার ওসি মোহাম্মদ জসিম উদ্দীন বলেন, কিশোররা অনেক খারাপ ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছে। ইতিমধ্যে কিশোর গ্যাং সদস্যদের নামের তালিকা করা শুরু হয়েছে। তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলা হবে।।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।