1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
নালিতাবাড়ীর গোপাল সরকার সাংগঠনিক সম্পাদক হওয়ায় বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের শুভেচ্ছা নালিতাবাড়ীতে বৃদ্ধাকে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেওয়ার ভিডিও ভাইরাল, কারাগারে পুত্রবধূ ও নাতি। নালিতাবাড়ীতে ওয়ার্কার্স পার্টির কমরেড অমল সেন স্বরণে শীতবস্ত্র বিতরণ নালিতাবাড়ীতে বিটিসিএল অফিস বেহাল,টেলিফোন সংযোগ বিহীন । শেরপুরে ওয়ার্কার্স পার্টির শীতবস্ত্র বিতরণ ঝিনাইগাতীতে বিনাচিকিৎসায় ৮বছর ধরে শিকলে বন্দি ভারসাম্যহীন আখি পাবলিক বাসে চড়ে ঢাকায় ফিরলেন মতিয়া চৌধুরী “ছোট দেশ হলেও বড় বড় দেশ যা করে আমরা তাদের চেয়ে পিছিয়ে নেই”মতিয়া চৌধুরী নালিতাবাড়ীতে সংরক্ষণের অভাবে গণকবর নদীতে বিলীন হওয়ার পথে ! নালিতাবাড়ীতে কমিউনিস্ট পার্টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত

কেশবপুরে পুলিশের অভিযানে আইনজীবী ও মাদক ব্যবসায়ীসহ ১৩ আসামী গ্রেফতার

মীর আজিজ হাসান (যশোর)কেশবপুর প্রতিনিধি।
  • Update Time : বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২১৫ Time View

কেশবপুর থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মাদকসেবী আইনজীবী, মাদক ব্যবসায়ী, বিজ্ঞ আদালতের ওয়ারেন্টভুক্ত ও নিয়মিত মারামারি মামলার ১৩ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে। মাদক উদ্ধারের ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে থানায় পৃথক পৃথক মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা হয়েছে।

থানা সূত্রে জানা যায়, কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জসীম উদ্দীনের সার্বিক নির্দেশনায় মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কেসমত শানতলা বাজারের গাজীর মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে উপ-পরিদর্শক পিন্টু লাল দাস, অরূপ কুমার বসু, মঈনুর রহমান, সহকারী উপ-পরিদর্শক সমরেশ দত্ত, সোহেল, মোমিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মৃত শহর আলীর ছেলে আইনজীবী মাহবুবুর রহমান (৪৭), মাদারডাঙ্গা গ্রামের আঃ মালেক মোড়লের ছেলে মুন্না হোসেন (২০), একই গ্রামের অমল কৃষ্ণ রায়ের ছেলে প্রবীর রায় (৩২), মৃত মশির আলী সরদারের ছেলে মতিন সরদার (৩৪), মনোহর নগর গ্রামের মৃত হাজারী লালের ছেলে অনুপম রায়কে (৩০) মাদক সেবন করা অবস্থায় গ্রেফতার করে। ওই সময় তাদের কাছ থেকে ১৯ পিছ ইয়াবা, ৩ বোতল দেশীয় মদ, ১ বোতল ফেনসিডিল, ১০ বোতল হোমিওপ্যাথিক এলকোহল ও এলকোহলের ১১০ খালি বোতল উদ্ধার করা হয়।

অপর দিকে উপ-পরিদর্শক ফজলে রাব্বি মোল্ল্যা, মাহাফুজ, তাপস কুমার রায়, সহকারী উপ-পরিদর্শক মোক্তার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপজেলার খোপদই গ্রামে অভিযান চালিয়ে নূর মোহাম্মদের ছেলে মোখলেছুর (২৮) মাদক সহ হাতে-নাতে গ্রেফতার করে। ওই সময় তাঁর বসত বাড়ি থেকে ৫০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তার নামে থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা হয়েছে। একই রাতে উপ-পরিদর্শক আজিজুর রহমান, লিখন সরকার, মিজানুর রহমান, সহকারী উপ-পরিদর্শক নজরুল ইসলাম, কাজী রহমত, মনিরুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কেশবপুর পৌর শহরের মাছ বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে মণিরামপুর উপজেলার হাসাডাঙ্গা গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে নয়ন হোসেনকে (৩২) গ্রেফতার করে। ওই সময় তার দেহ তল্লাশি করে ১০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার হয়। এ ঘটনায় তার নামে থানায় পৃথক মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা হয়েছে। ওই রাতেই নিয়মিত মারামারি মামলায় তেঘরী গ্রামের মৃত তফেজ মোড়লের ৪ ছেলে ইনছার আলী (৬৫), আমজেদ আলী (৬২), আব্দুস সবুর (৬০), মশিয়ার রহমানকে (৫৫) গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। একই অভিযানে বিজ্ঞ আদালতের ওয়ারেন্টভুক্ত বরণডালি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক সানার ছেলে হযরত আলী সানা (৪৫) ও মধ্যকূল গ্রামের সাত্তার মোড়লের ছেলে কবির হোসেন সুমনকে (৩৫) গ্রেফতার করা হয়।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জসীম উদ্দীন বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতের গ্রেফতারী পরোয়ানা, মারামারী ও মাদক মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার গ্রেফতারকৃত সকল আসামীদের যশোর আদালতে প্রেরণ করা হবে। মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল করতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।