1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
নালিতাবাড়ীতে মার্সেল ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন হৃদরোগের আশঙ্কা আছে কি না, বৃদ্ধাঙ্গুলি দিয়ে মুহূর্তেই পরীক্ষা করবেন যেভাবে ঝিনাইগাতীতে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন নালিতাবাড়ীতে বিদ্যুতের লোড সেডিংয়ে অতিষ্ট সাধারণ মানুষ ঝিনাইগাতীতে নিখোঁজের ১৮দিনেও মাদ্রাসা ছাত্রের সন্ধান মেলেনি শ্রীবরদীতে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষণে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ঝিনাইগাতীতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে কৃষক হত্যার চেষ্টা ঝিনাইগাতীতে পাখি শিকারীকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা ঝিনাইগাতীতে ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি অপহৃত স্কুলছাত্রী ঝিনাইগাতীতে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধার দাফন

সরকার দলীয় নেতাদের ”ফাউ নেতা”বলে তোপের মুখে ইউপি চেয়ারম্যান !

মাসুদ হাসান বাদল
  • Update Time : শুক্রবার, ৫ মার্চ, ২০২১
  • ১৫৬ Time View

গতকাল ৪ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইগাতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার(ইএনও) হল রুমে স্বাধীনতা দিবস উৎযাপনের প্রস্তুতি সভা চলছিল।এই সভায় প্রস্তাব করা হয় ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীর দিন থেকে স্বাধীনতা দিবস ২৬ মার্চ পর্যন্ত ১০ দিন ব্যাপি উপজেলা চত্তরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

১০ দিনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে উপজেলার ৭ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একদিন করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের যাবতীয় খরচ বহন করবেন,বাকী তিনদিন করবে উপজেলা প্রশাসন- এমন দাবী সরকারি দলের নেতাদের মধ্য থেকে তোলা হয়।এসময় উপজেলার কাংশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সরকার দলীয় নেতা জহুরুল হক এই দাবীর সাথে একমত না হয়ে বক্তব্যে বলেন এমন খরচ চালানো তার পক্ষে সম্ভব না।সভায় উপস্থিত থাকা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক শাহরিয়ার খান শাউন চেয়ারম্যানের বক্তব্যের উত্তেজিত হয়ে চেয়ারম্যানের সমালোচনা করেন।শাউনের সাথে যোগ দেয় আরো কজন সরকার দলীয় নেতা।ওই সময় চেয়ারম্যান জহুরুল হক দাড়িয়ে প্রতিবাদ কারি নেতাদের ”ফাউ নেতা” বলে আখ্যায়িত করলে সভায় সরকার দলীয় নেতাদের তোপের মুখে পড়ে যান ওই চেয়ারম্যান।এক পর্যায়ে বেশ কজন নেতা চেয়াম্যানকে মারতে উদ্যত হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়।পরে অবস্থা বেগতিক দেখে চেয়ারম্যান নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে লাঞ্চিত হওয়া থেকে রক্ষা পান।পরে ইএনও ওই প্রস্তাবটি নাকচ করে উপজেলা প্রশাসনের খরচেই অনুষ্ঠান হবে বলে ঘোষনা দেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন,দলে যোগদান না করেই নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান হওয়ায় এতবড় সাহস পেয়েছেন ওই চেয়ারম্যার।জহুরুল হক চেয়ারম্যান এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ বলেছেন ওই প্রস্তাবটি চেয়ারম্যান না মানায় নেতারা উত্তেজিত হয়ে ছিলেন।এক পর্যায়ে তার(ইএনও) মধ্যস্থতায় চেয়ারম্যান ও নেতারা মিটে গেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।