1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ঝিনাইগাতীতে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জেরে ইউপি সদস্যের হাতে চেয়ারম্যান প্রহৃত ঝিনাইগাতীতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুমানের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল কেশবপুরে ১৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬ জন করোনা পজিটিভ নালিতাবাড়ীতে মাদকসেবী,মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোরগ্যাং সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন। সাংবাদিক এমএ হাকাম হীরার মায়ের ইন্তেকাল “বছরে এক লক্ষ ব্যাগ রক্তের যোগান দেবে জাগ্রত ব্লাড ডোনার’স ক্লাব” ”কত মাইনষ্যে ঘর পাইলো, আমি কিছুই পাইলাম না” কেশবপুরে রোগযন্ত্রনা সইতে না পেরে বৃদ্ধার আত্মহত্যা কেশবপুরে পুকুর থেকে কাঠ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার সোহাগপুর বিধবা পাড়ায় শহিদ স্মৃতি সৌধের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

ঝিনাইগাতী বালু দস্যুদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত গারো পাহাড়

ঝিনাইগা‌তী(‌শেরপুর)প্র‌তি‌নি‌ধি
  • Update Time : শনিবার, ৬ মার্চ, ২০২১
  • ১০৩ Time View

 

বালু দস্যুদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত হয়ে পরেছে শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গারো পাহাড়। স্হানীয় বালুদস্যুরা গারো পাহাড়ের সোমেশ্বরী ও কাল ঘোষা নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু লুটপাট করে আসছে।

জানা গেছে, বালু দস্যুরা সোমেশ্বরী নদীর তাওয়াকোচা,খাড়ামুড়া,রাঙ্গাজান,বালিজুরি, কালঘোষা নদীর বাঁকাকুড়া, গান্দিগাঁও, মালিটিলা এলাকার বিভিন্ন স্হানে ১৫ /২০টি শ্যালোইঞ্জিন বসিয়ে দীর্ঘ দিন থেকে অবৈধভাবে বালু লুটপাট চালিয়ে আসছে। শুধু তাই নয় পাশাপশি উত্তোলন করা হচ্ছে পাথরও। স্হানীয় বাসিন্দারা জানান এসব এলাকা থেকে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকা মুল্যের বালু পাথর লুটপাট করে দেশের বিভিন্ন স্হানে বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতিদিন ট্রাকট্রলি ও মাহিন্দ্র যোগে দিনে রাতে পরিবহন করা হচ্ছে এসব বালু ও পাথর। সরেজমিনে অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা গেছে,বালুদস্যুদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত হয়ে পরেছে নদীর দুপারের ফসলি জমিসহ গারো পাহাড়। এতে একদিকে যেমন গারো পাহাড়ের সৌন্দর্য ও পরিবেশের ভারসাম্য হুমকির সম্মুখিন হয়ে পরেছে। অপরদিকে সরকার বঞ্চিত হচ্ছে লাখ লাখ টাকার রাজস্ব আয় থেকে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্দের বিষয়ে কোন কোন সময় উপ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুই একটি বালু উত্তোলন যন্ত্র, শ্যালোমেশিন ভাংচুর ও করা হয়েছে। কিন্তু অবৈধভাবে বালু লুটপাট বন্ধ হয়নি। একদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান চালানো হচ্ছে। পিছনে পিছনে শুরু হচ্ছে অবৈধভাবে বালু ও পাথর লুটপাট। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ বালুদস্যুদের বিরুদ্ধে স্হায়ীভাবে ব্যবস্হা না নেয়ার অবৈধভাবে বালু ও পাথর লুটপাট বন্ধ হচ্ছে না। বর্তমানে গারো পাহাড়ের নদীগুলো থেকে পাথর ও বালু লুটপাটের মহোৎসব চলছে। ৬ মার্চ ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ কালঘোষা নদীর উপজেলার বাকাকুড় ও গান্দিগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে শ্যালোইঞ্জিন চালিত ২ টি বালু উত্তোলন যন্ত্রও প্রায় ৫ মিটার পাইপ ধ্বংস করেন। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ ঘটনার সত্য তা নিশ্চিত করে বলেন এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।