1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ঝিনাইগাতীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপিতে প্রার্থী সংকট, আওয়ামী লীগে ছড়াছড়ি সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে ওয়ার্কার্স পার্টির মানববন্ধন ঝিনাইগাতীতে আর্থিক সংকটে মেয়ের চোখের চিকিৎসা করাতে পারছেন না দরিদ্র পিতা না‌লিতাবাড়ী‌তে কমরেড আবুল বাশার ব্রিগেডের উদ্যোগে পুজা মন্ডপে স্বাস্থ্য সামগ্রী বিতরণ ঝিনাইগাতীতে সংসদ সদস্য ফজলুল হকের পূজা মন্ডপ পরিদর্শন নালিতাবাড়ীতে গাছ কেটে র‌শি দি‌য়ে টান দিলে মাথায় পড়ে শ্রমিক নিহত জননেত্রী শেখ হাসিনার দেশ পরিচালনায় সুশাসনের ফল সকল ধর্মের মানুষ পাচ্ছে। মতিয়া চৌধুরী শ্রীবরদীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা “যতক্ষণ শেখ হাসিনার হাতে দেশ, পথ হারাবে না বাংলাদেশ”ম‌তিয়া চৌধুরী নালিতাবাড়ীতে মা মেয়েকে সাতজনে মিলে গণধর্ষণ: গ্রেফতার ২

ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মসজিদের ইমামকে মারধরের অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৪৭ Time View

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি
শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় একজন মসজিদের ঈমামের বিরুদ্ধে তাবিজ কবজের অভিযোগ এনে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে গতকাল শনিবার রাতে থানায় দুপক্ষ লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ওসি।
জনপ্রতিনিধি,ওই ইমাম ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছু দিন ধরে উত্তর আন্ধারুপাড়া বাইতুল মামুর শান্তিময় মসজিদের ইমাম সাইফুল ইসলামের কাছে ওই এলাকার এক যুবক তার মামাতো বোনকে বসে আনতে তাবিজ কবজের জন্য আসেন। ইমান তাবিছ কবজ জানেনা বলে যুবককে জানিয়ে দেন । ১৫ দিন আগে হঠাৎ করে ওই যুবকের মামাতো বোন অসুস্থ হয়ে পড়েন। ওই মেয়ের পরিবার মনে করছেন মসজিদেরর ইমাম তাবিজ কবজ করায় তাঁদের মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। পরে ওই মেয়ের বাবা পোড়াগাও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো.আজাদ মিয়ার কাছে অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যান বারমারি বাজারে শনিবার সালিশ ডাকেন। পরে ইমামকে মারধরের ভয় দেখিয়ে তাবিজ কবজ করার কথা স্বীকার করতে বলেন। ইমাম অস্বীকার করলে তাকে অন্য কক্ষে নিয়ে চেয়ারম্যান গালে মুখে চর থাপ্পর মারেন এবং ইমামকে দেয়ালে ঠেকিয়ে গলা চেপে ধরে বলে অভিযোগ করে ইমাম। সালিশ থেকে ফিরে ইমাম সাইফুল ইসলাম বিষয়টি এলাকাবাসিকে অবগত করেন। পরে এলাকাবাসি ইমামের মারধরের ঘটনার বিচার দাবি করেন। রাতে ইমামকে নিয়ে এলাকাবাসি থানা লিখিত আভিযোগ দেন। পরে চেয়ারম্যান থানায় এসে ইমামের বিরোদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন।
ইমাম মো.সাইফুল ইসলাম বলেন,আমাকে তাবিজ কবজের জন্য চেয়ারম্যান সালিশে ডেকে সবার সামনে গালিগালাজ করেছেন। পরে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে আমাকে গালে মুখে চর থাপ্পর মেরেছেন। আামি কোন তাবিজ কবজ করি নাই। আমাকে চেয়ারম্যান অন্যায় ভাবে মেরেছে আমি এর বিচার চাই।
ইউপি চেয়ারম্যান আজাদ মিয়া বলেন,ওই মেয়ের বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে ডাকা হয়েছিল। তবে ইমাম তাবিজ কবজের কথা সবার সামনে স্বীকার করেছেন তার ভিডিও রেকর্ড আছে। ইমামকে কোন প্রকার ভয় ভিতি এবং মারধর করা হয়নি।
নালিতাবাড়ী ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা জামাল উদ্দিন বলেন,একজন ইমামকে চেয়ারম্যান তো মারতে পারেন না। যদি একজন ইমামের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকে তাহলে আমাদের জানাতে পারতেন। নতুবা আইনের আশ্রয় নিতে পারতেন। আমরা এর বিচার দাবী করছি।
নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) বছির আহমেদ বাদল বলেন,শনিবার রাতে দুপক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।