1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ঝিনাইগাতীতে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জেরে ইউপি সদস্যের হাতে চেয়ারম্যান প্রহৃত ঝিনাইগাতীতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুমানের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল কেশবপুরে ১৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬ জন করোনা পজিটিভ নালিতাবাড়ীতে মাদকসেবী,মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোরগ্যাং সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন। সাংবাদিক এমএ হাকাম হীরার মায়ের ইন্তেকাল “বছরে এক লক্ষ ব্যাগ রক্তের যোগান দেবে জাগ্রত ব্লাড ডোনার’স ক্লাব” ”কত মাইনষ্যে ঘর পাইলো, আমি কিছুই পাইলাম না” কেশবপুরে রোগযন্ত্রনা সইতে না পেরে বৃদ্ধার আত্মহত্যা কেশবপুরে পুকুর থেকে কাঠ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার সোহাগপুর বিধবা পাড়ায় শহিদ স্মৃতি সৌধের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

ঢাকার কোথাও ঠাঁই না পেয়ে স্বপরিবারে চলে আসে গ্রামের বাড়ী

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১ মে, ২০২১
  • ৬৫ Time View

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি
ঢাকার বসুন্ধরার আবাসিক একটি বাড়ীতে দাড়োয়ানের চাকরি করতেন আনারুল ইসলাম। পরিবারের সবাই করোনা পজেটিভ হওয়ায় ওই বাড়িওয়ালা তাড়িয়ে দিয়েছেন আনারুলকে। অসহায় আনারুল ঢাকার কোথাও ঠাই না পেয়ে স্বপরিবারে চলে আসেন গ্রামের বাড়ি শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার কাঁকরকান্দি ইউনিয়নের পিঠাপুনি গ্রামে।
সুত্র জানায়, আনারুল গত বুধবার (২৮ এপ্রিল) ঢাকার কুর্মিটেলা জেনারেল হাসপাতালে করোনা করানো হয়। পরীক্ষায় পরিবারের পাঁচ সদস্যের সবাই করোনা পজেটিভ হন। সংক্রমন মৃদু হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদেরকে দশ দিনের ওষধ দিয়ে বাড়ীতে চিকিৎসা নিতে বলেন। এতে অসহায় হয়ে পড়েন পরিবার প্রধান আনারুল ইসলাম। তিনি ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিকের জি বøকের ১৭ নম্বর সড়কের একটি আবাসিক বাড়ীতে দাড়োয়ানের চাকরি করতেন। আনারুলের পরিবারের সবাই করোনা পজেটিভ হওয়ায় ওই বাড়িওয়ালা তাড়িয়ে দিয়েছেন । তাই অসহায় আনারুল ঢাকার কোথাও ঠাই না পেয়ে স্বপরিবারে চলে আসেন গ্রামের বাড়ী নালিতাবাড়ী উপজেলার কাঁকরকান্দি ইউনিয়নের পিঠাপুনি গ্রামে। দরিদ্র অসহায় এই পরিবারটির খবর ছড়িয়ে পড়লে নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলামের নজরে আসে। পরে তিনি ওই পরিবারের জন্য ১ বস্তা চাল, তেল, সাবান, মিষ্টি লাউ, পেঁয়াজ, হুইল পাউডার, মুড়ি, ছোলা, মসুরি ডাল, নুনা ইলিশ ও চিনি উপহার হিসেবে তুলে দেন।
উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দিলেন আমিনুল ইসলাম বলেন, করোনার এই মহামারীতে আনারুলের প্রতি ওই বাড়ীওয়ালার এমন অমানবিক আচরণে আমরা কষ্ট পেয়েছি। আমরা অসহায় পরিবারটির পাঁশে দাঁড়ানোর জন্য সাধ্যমতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও)হেলেনা পারভীন বলেন,আমি জানার পর এসিল্যান্ড সঞ্চিতা বিশ্বাসকে নিয়ে খাদ্য ও অর্থ সহ পিঠাপুনি গিয়েছিলাম। তাদের কাছে আমাদের ফোন নাম্বার দিয়ে আসছি। যে কোন সমস্যায় জানালে সহায়তা করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।