1. admin@somoyerahoban.com : somoyerahoban :
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ঝিনাইগাতীতে সুকুমার হলেন শুকুর আলী কেশবপুরে বজ্রপাত প্রতিরোধে তালের চারা রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করলেন এমপি শাহীন চাকলাদার নালিতাবাড়ীতে সনাকের উদ্যোগে ৪০০ তালবীজ রোপন ঝিনাইগাতীতে ইউনিয়ন পরিষদের রাস্তা বন্ধ করে বিল্ডং নির্মানের অভিযোগের তদন্ত শুরু কেশবপুরে যুব সমাজের উদ্যোগে বজ্রপাত প্রতিরোধে তালের বীজ রোপন শেরপুরে মুজিব শতবর্ষ জেলা দাবা লীগ উদ্বোধন : প্রথমদিন দাবা ক্লাবের পূর্ণ পয়েন্ট লাভ। নালিতাবাড়ীতে মায়ের সাথে অভিমান করে শিশুর আত্মহত্যা শ্রীবরদীতে মাদকবিরোধী অভিযানে হেরোইনসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার সোমেশ্বরী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু লুটপাট চলছেই,পাড় ভেঙ্গে হুম‌কি‌তে বসতবাড়ি নালিতাবাড়ীতে আখ চাষে লাভ,বাড়ছে আবাদ

শ্রীবরদীর খাড়ামুড়া গ্রামবাসীদের দুঃখ সোমেশ্বরী নদী ,৫০ বছরেও নির্মিত হয়নি ব্রীজ।

ঝিনাইগা‌তী(‌শেরপুর)প্র‌তি‌নি‌ধি
  • Update Time : শনিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৬ Time View

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার রানিশিমুল ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী খাড়ামুড়া গ্রামের চার হাজার মানুষের দুঃখ সোমেশ্বরী নদী। নদীটির দুইটি শাখা ভারত থেকে নেমে গ্রামের দুই পাশ দিয়ে প্রবেশ করে বালিজুরি গ্রামে এসে মিলন ঘটেছে। খাড়ামুড়া গ্রাম থেকে পশ্চিমে রাঙ্গাজান গ্রামে যেতে হলে এ নদী পাড়ি দিয়ে যেতে হয়। দক্ষিনে বালিজুরি ও পুর্বপাশে তাওয়াকুচা গ্রামে যেতে হলেও এ নদী পারি দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে। সরেজমিনে দেখা গেছে, উত্তরে ভারত সীমান্ত ঘেষা এ গ্রামটির দিকে তাকালে যে কারো মনে হবে এ যেন একটি সিট মহল। ছোট- বড়ো, নারী-পুরুষ আবাল বৃদ্ধা বনিতাসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর প্রায় ৪ হাজার লোকের বসবাস। শ্রীবরদী উপজেলা সদর থেকে খাড়ামুড়া গ্রামের দুরত্ব প্রায় ২০ কিলোমিটার। এ গ্রামবাসীদের দুঃখ দুর্দশার যেন শেষ নেই। রাস্তা -ঘাটের বেহাল দশা।শিক্ষায় দিক্ষায় এ গ্রামবাসীরা রয়েছে অনেক পিছিয়ে। অভাব অনটন দুঃখ আর দুর্দশাই গ্রামবাসীদের নিত্যসঙ্গি।সোমেশ্বরি নদীর উপর একটি ব্রীজ না থাকায় গ্রামবাসীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সারা বছর এগ্রামের লোকজনদের নদী পারাপার হতে হয় কখনো নৌকা,কখনো কলার ভেলা, আবার কখনো বাঁশের সাঁকো যোগে। এভাবে নদী পারাপারের সময় কোমলমতি শিশুকিশোর থেকে শুরুকরে বিভিন্ন বয়সের লোকজনকে বিভিন্ন সময় দুর্ঘটনার ও শিকার হতে হচ্ছে প্রায়ই । এছাড়া এলাকায় উৎপাদিত কৃষি পণ্য ও গবাদি পশু পারাপারে কৃষকদের নানা বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে।

বালিজুরি গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ নুর ইসলাম ও খাড়ামুড়া গ্রামের এরশাদসহ গ্রামবাসীরা জানান, দেশ স্বাধীনের পর থেকে এ নদীর উপর একটি ব্রীজ নির্মাণের দাবি উঠে গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে। বিভিন্ন সময় আশ্বাসও পাওয়া গেছে। কিন্ত আজো তা বাস্তবায়িত হয়নি। এ নদীর উপর ব্রীজ না থাকায় জরুরি ভিত্তিতে কোন রোগী হাসপাতালে নেওয়ার প্রয়োজন হলে তা নেয়া সম্ভব হয় না।

রানিশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ রানা বলেন,এ নদীর উপর একটি ব্রীজ নির্মাণের বিষয়ে উপজেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় বিভিন্ন সময় আবেদন নিবেদন ও করা হয়েছে। বিভিন্ন সময় আশ্বাসও পাওয়া গেছে। কিন্তু আজও তা বাস্তবায়িত হয়নি। তিনি বলেন খাড়ামুড়া গ্রামবাসীর সবচেয়ে বড়ো দুঃখ সোমেশ্বরী নদী। তিনি এ নদীর উপর জরুরি ভিত্তিতে একটি ব্রীজ নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি জানিয়েছেন।

শ্রীবরদী উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জাহাঙ্গীর হোসাইন বলেন,ওই নদীর উপর একটি ব্রীজ নির্মাণের জন্য নকশা ও মাটি পরীক্ষার কাজ চলছে। পরীক্ষার কাজ শেষে প্রকল্প প্রনয়ন করে সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরে পাঠানো হবে। অনুমোদন পাওয়া গেলেই ব্রীজ নির্মানের প্রস্তুতি নেয়া হবে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
কপিরাইট © 2020 somoyerahoban.com একটি স্বপ্ন মিডিয়া সেন্টার প্রতিষ্ঠান।