1. admin@somoyerahoban.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:০০ অপরাহ্ন

নালিতাবাড়ীতে শিশু ও বসন্ত বরণ উৎসব

রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৩১ বার

নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি
লাল টিপ আর বাসন্তী রঙের শাড়িতে সেজে আসা মেয়েটির খোঁপায় উঠেছে হলুদ গাঁদার মালা। আবির এসে ছুঁয়ে যায় তার মৃদু হাসিতে টোল পড়া গাল। সেই পরিবেশে দূর থেকে কোকিলের সুরের মতো ভেসে আসে ‘বসন্ত এসে গেছে’। সত্যিই তাই, সব স্বপ্ন আর অপেক্ষা পূর্ণ করে অবশেষে বসন্ত এলো। দিন ক্ষণ মেপে, অনেকটা উচ্ছ্বলতা নিয়ে বসন্ত এলো উত্তরের পাহাড়ি জনপদ শেরপুর নালিতাবাড়ী পৌরশহরের সেঁজুতি অঙ্গনে। বাদ্যযন্ত্রে রাজ্যের সুরে সে ধরা দিয়েছে নাগরিক জীবনের চঞ্চলতায়।
মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় সেঁজুতি বিদ্যানিকেতনের আয়োজনে সেঁজুতি অঙ্গনে অনুষ্ঠিত হলো শিশু ও বসন্ত বরণ উৎসব। উৎসবে যাপিত জীবনের সীমাবদ্ধ গ-ি পেরিয়ে গাওয়া হলো বসন্তের গান।
আয়োজনে প্রথমেই ছোট্র শিশুরা লালপেড়ে হলুদ শাড়ি,খোঁপায় গাঁদাফুলে বসন্ত ঋতুর সাজে আবীর মেখে বসন্ত উৎসবের শুভ সূচনা করে। এরপর বসন্তের আবাহন পাঠ করেন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা কলেজের প্রভাষক স্বপ্না চক্রবর্তী। পরে সেঁজুতি অঙ্গন থেকে শুরু হয় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা লাল আর বাসন্তী রঙের সাজে,শোভাযাত্রায় যুক্ত হোন নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াজ কুরুনি, সিনিয়র সাংবাদিক সামেদুল ইসলাম তালুকদার, শাহাদাত তালুকদার প্রমুখ। গুণগুণিয়ে সুর ওঠে..বসন্ত জাগ্রত দ্বারে! সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় বসন্তকথন পর্ব। এই পর্বে বক্তব্য উপস্থাপন করেন নবরূপী ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক গোষ্ঠীর সভাপতি জয়জিৎ দত্ত শ্যামল,মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম খোকন, অভিভাবক সাইদুল ইসলাম, শিক্ষক মাহমুদুল আহসান,প্রভাষক স্বপ্না চক্রবর্তী, লিটন,ইসমাইল হোসেন সিরাজী।
বসন্ত তার সময়ের নিয়মে চলে এসেছে। সবাই এই বসন্ত উদযাপন করে অপসংস্কৃতি দূর করতে চাই। জয়জিৎ দত্ত শ্যামল বলেন,বসন্তের অবগাহনে মেতে উঠে বাঙালির সংস্কৃতিকে আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব আমাদের সকলের। বসন্তের যে রঙের ছটা, তা সবার ঘরে ঘরে পৌঁছে যাক, বর্ণিল যে আনন্দ, সেটিই আমাদের কাম্য।
প্রভাষক স্বপ্না চক্রবর্তী বলেন, আমরা বাংলাদেশের মানুষ অত্যন্ত ভাগ্যবান। পৃথিবীর কোথাও কিন্তু ষড়ঋতু নেই। আর এই ছয় ঋতুর মধ্যে বসন্ত একেবারে ঋতুরাজ। তরুণ প্রজন্মের জন্য বলতে চাই- প্রকৃতি আমাদের আসল জায়গা। আমাদের যে অর্জন তার সবকিছুই প্রকৃতির কাছ থেকে। আসুন আমরা নিজেদের প্রকৃতির মধ্যে বিলিয়ে দিই। সবশেষে একে একে মঞ্চে উঠে আসে বসন্তের গান, নৃত্য,কবিতা,অভিনয়,ফ্যাশন শো।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত...